জান্নাত লাভের ৬ আমল

0
7
views

আল্লাহ তাআলা মানুষকে তাঁর ইবাদতের জন্য দুনিয়াতে পাঠিয়েছেন। মানুষ আল্লাহর জমিনে তাঁর ইবাদাত করবে, বিনিময়ে আল্লাহ তায়ালা পরকালীন জীবনে দান করবেন সর্বোচ্চ সফলতা। যার ওয়াদা করেছেন বিশ্বনবি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম।

জান্নাত লাভের ৬ আমল

রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তাঁর উম্মতদের লক্ষ্য করে বলেছেন, ‘আমাকে ৬টি আমল মেনে নেয়ার ব্যাপারে ওয়াদা দাও; আমি তোমাদের জন্য জান্নাতের ওয়াদা দেব।’ তাহলো-
সবসময় সত্য বলা

প্রথমত আল্লাহ তাআলা কে এক বলে স্বীকার করা। একনিষ্ঠ অন্তরে তাওহিদের কালেমা পড়া। কেননা মুখে কালেমা পড়া আর অন্তরে বিপরীতমুখী কাজ হলো সবচেয়ে বড় মিথ্যাচার। মিথ্যা মানুষের আমল কে এমন ভাবে নষ্ট করে যেমন আগুন কাট কে শেষ ফেলে।
২)ওয়াদা পালন করা

মানুষ আলমে আরওয়াহ বা রুহের জগতে আল্লাহ তাআলাকে প্রতিপালক হিসেবে স্বীকার করেছিল। তাঁর অনুগত থাকার ওয়াদা করেছিল মানুষ। বান্দার জন্য এ ওয়াদা পালন করা আবশ্যক।
৩)আমানতে খেয়ানত না করা

ঈমান ও ইসলামের বিধি-বিধান বান্দার কাছে আল্লাহর আমানত। এ আমানত রক্ষা করা মানুষের জান্নাত লাভের আবশ্যক ।
৪)নিজের দৃষ্টি নিচু রাখে।
৫)ইজ্জতের লজ্জস্থানের হেফাজত করা
৬)জুলুম করা থেকে বিরত থাকা।
সুতরাং মুমিন মুসলমানের উচিত, আল্লাহর রাসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের ঘোষিত ৬টি উপদেশ পালন করা একান্ত আবশ্যক। এতে শুধু পরকালে জান্নাতের নিশ্চয়তাই নয়, বরং দুনিয়ার শান্তি ও নিরাপত্তাও সুনিশ্চিত।

আল্লাহ তাআলা মুসলিম উম্মাহকে উল্লেখিত ৬টি উপদেয় যথাযথভাবে পালন করার তাওফিক দান করেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here