বিষয়- তারাবীহ এর নামাজ নিয়মিতভাবে জামাতাতের সহিত আদায়ের প্রচলন

0
37
views

তারাবীহ নামায নিয়মিতভাবে জামায়াতের সাথে আদায়ের
প্রচলন হয়ে ছিল হযরত ওমর ফারুক রাদিয়াল্লাহু আনহুর
এর যুগে। কারণ ইতোপূরবে তারাবীহ নামাযের সুনিরদিষ্ট
নিয়মে জামায়াতের কোন ব্যবস্থা ছিল না এবং জামায়াতের
প্ৰতি তেমন কোন গুরুত্বও ছিল না। সাহাবায়ে কেরামগণ ।
যে যেভাবে পেরেছেন অরথাৎ কেউ জামায়াতের সাথে আবার
কেউ একা একা তারাবীহ আদায় করেছেন। কিন্তু হযরত
ওমর ফারুক রাদিয়াল্লাহু আনহু এর খেলাফতের
শেষপ্রান্তে এসে তারই আদেশে তারাবীহর জামায়াতের
প্রতি অধিক গুরুত্বারোপ করা হয়। ফলে সুনির্দিষ্ট নিয়মে
জামায়াতের সাথে সাহাবায়ে কেরামের ঐকমতযে তারাবীহ
প্ৰচলন ঘটে। যা আজও বিদ্যমান রয়েছে।
হযরত ওমর ফারুক রাদিয়াল্লাহু আনহু এর খেলাফতের ।
শেষদিকে তিনি জামায়াতের সাথে তারাবীহ নামাযের
প্রচলন করে বলেন- (নে’মাল বেদয়াতী হাজিহী) এই বেদয়াত টি অতি উত্তম।
বিদআত বা বিদআতে হাসানাহ।

হাদীসের রাবী ইবনুূু শিহাব বলেন , রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম ইন্তেকাল করেন এবং তারাবীহর ব্যাপারটি এ ভাবেই চালু ছিল। এমনকি আবূ বাকর রাদিয়াল্লাহু আনহু র খিলাফতকালে ও ‘উমর রাদিয়াল্লাহু আনহু
-এর খিলাফতের প্রথম ভাগে এরূপই ছিল। ইবনুূু শিহাব ‘উরওয়া ইবনুূু যুবায়র সূত্রে ‘আব্দুর রাহমান ইবনুূু ‘আবদ আল -ক্বারী থেকে বর্ণনা করেন , তিনি বলেন , আমি রমযানের এক রাতে ‘উমর ইবনুূুল খাত্তাব রাদিয়াল্লাহু আনহু -এর সঙ্গে মসজিদে নববীতে গিয়ে দেখতে পাই যে , লোকেরা বিক্ষিপ্ত জামায়াতে বিভক্ত। কেউ একাকী সালাত (নামায/নামাজ) আদায় করছে আবার কোন ব্যাক্তি সালাত (নামায/নামাজ) আদায় করছে এবং তার ইকতেদা করে একদল লোক সালাত (নামায/নামাজ) আদায় করছে। ‘হজরাতে উমর দিয়াল্লাহু আনহু
বললেন , আমি মনে করি যে , এই লোকদের যদি আমি একজন ক্বারীর (ইমামের )পিছনে একত্রিত করে দিই , তবে তা উত্তম হবে। এরপর তিনি উবাই ইবনুূু কা‘ব রাদিয়াল্লাহু আনহু -এর পিছনে সকলকে একত্রিত করে দিলেন। পরে আর এক রাতে আমি তাঁর [‘উমর রাদিয়াল্লাহু আনহু সঙ্গে বের হই। তখন লোকেরা তাদের ইমামের সাথে সালাত (নামায/নামাজ) আদায় করছিল। ‘উমর রাদিয়াল্লাহু আনহু বললেন , কত না সুন্দর এই নতুন ব্যবস্থা! তোমরা রাতের যে অংশে ঘুমিয়ে থাক তা রাতের ঐ অংশ অপেক্ষা উত্তম যে অংশে তোমরা সালাত (নামায/নামাজ) আদায় কর, এর দ্বারা তিনি শেষ রাত বুষিয়েছেন , কেননা তখন রাতের প্রথমভাগে লোকেরা (নামায/নামাজ) আদায় করত।
আর তখন থেকেই উমর রাদিয়াল্লাহু আনহু এর নির্দেশে তারাবীহ নামাজ দুই রাকাত করে ২০রাকাত

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here